ওয়াইজ একাউন্ট ভেরিফিকেশনের ২০ ডলার লোড পাবার নিয়ম

ট্রান্নফারওয়াইজ একাউন্ট খোলার পর নিচের প্রসেস গুলো অনষরন করুন:

স্টেপ ১: একাউন্ট

প্রথমেই একাউন্ট ওয়াইজ একাউন্ট খুলে নিন যদি না খুলে থাকেন, এখানে ক্লিক করুন। জাস্ট ফোন নাম্বার এবং ইমেইল দিয়ে একাউন্ট খুলে নিন। ব্যাংক এবং NID যেমন নাম এবং জন্ম তারিখ আসে সেটা ব্যবাহার করুন। শুধু মাত্র যারা আমাদের লিংক ব্যবহার করে একাউন্ট খুলবেন তাদেরকে ২০ ডলার লোডে হেল্প করা হবে।

স্টেপ ২: প্রাইভেসি সেটিংস

Wise Account এর প্রাইভেসি সেটিং এ পরিবর্তন করতে হবে যাতে করে আপনাকে ইমেইল এবং ফোন নাম্বার দিয়ে খুঁজে পাওয়া যায়। তাহলে অনেকটা পেপালের মত আপনার ফোন এবং ইমেইল এড্রেস এর মাধ্যমে আপনাকে টাকা পাঠাতে পারবে অন্য যে কোন ওয়াইজ ব্যবহার কারী।


স্মার্টফোন এ্যাপ এর প্রাইভেসি সেটিংস

স্টেপ ৩: একাউন্ট ভেরিফিকেশন

আপনার ওয়াইজ একাউন্টে ব্যবহৃত ইমেইল আমাদের ফেসবুক ইন-বক্সে দিতে হবে। আপনার ভেরিফিকেশন ডকুমেন্ট (শুধু মাত্র নতুন স্মার্ট NID অথবা পাসপোর্ট) আপনি আপলোড করবেন। হেল্প ভিডিও:

আমরা আপনার ওয়াইজ একাউন্টে ডলার পাঠানোর চেস্টা করলে আপনি উপরের নিয়মে ভিরিফাই করার ইমেইল পাবেন। ভেরিফাই করার পর আপনি ফান্ড রিসিভ করতে পারবেন। এই পদ্ধতিত আপনি আপনার পরিচিত যে কোন ওয়াইজ ব্যবহার কারী থেকে ২০ ডলার নিয়ে একাউন্ট ভেরিফাই করতে পারেন।

এছাড়া কেউ কেউ নিজের পেওনিয়ার কার্ড থাকলে GBP একাউন্ট অপেন করে নিজের পেওনিয়ার কার্ড থেকে ফাইন্ড লোড করে ভেরিফাই করতে পাচ্ছেন। পেওনিয়ার থেকে ওয়াইজে ইউএস ডলার লোড সাপোর্ট করে না।

আমাদের থেকে ভেরিফিকেশনের ২০ ডলার পেতে হলে…

প্রথম শর্ত হচ্ছে আমাদের ইনভাইটেশন লিংক থেকে একাউন্ট অপেন করতে হবে। তা না হলে আমাদের থেতে ২০ ডলার নিতে হলে, ফান্ড প্রসেসিংএ যে টাইম দিবো সেটার জন্য ৫০০ টকা এক্সট্রা চার্জ দিতে হবে।

ফান্ড রিসিভ প্রসেস

আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার আপনার ওয়াইজ একাউন্ট এর ইমেইল এড্রেস আমাদেরকে প্রোভাইড করবেন। এর পর আমরা আপনাকে টাকা পাঠানোর চেষ্টা করলেই ওয়াইজ আপনাকে ইমেইল পাঠাবে ভেরিফাই করার জন্য। তবে এই স্টেপের আগে আপনি আমাদের ২০ ডলার / ৩০ কানাডিয়ান সমমূল্য এডভান্স পে করবেন।

অনেক সময় যেমনটা দেখেছি USD রিসিভে ঝামেলা করে, ভেরিফাই করার পরও নিচের মত এরর দেখায়। অন্য কারেন্সি সহজে নিয়ে নেয়। আমাদের একাউন্টে কানাডিয়ান ডলার থাকে। কানাডিয়ান ৩০ ডলার লোড করতে হয় ভেরিফাই করার জন্য। তার পর অন্য কারেনসি একাউন্ট অটো পেয়ে যাবেন। এ ক্ষেত্রে কনভারশন রেট অনুযায়ী এক্সট্রা টাকা সেন্ড করতে হবে। ভেরিফিকেশন বিষয়ক আরো বিস্তারিত এই পেজে

কোন কারণি আপনি ডলার রিসিভ করতে না পারলে কিংবা সেন্ড করতে ইস্যু হলে বিকাশ রিফান্ড করতে ২ দিন সময় লাগতে পারে। সে ক্ষেত্রে সেন্ড মানি চার্জ ৫ টকা কেটে রাখা হবে।

আর আপনার একাউন্টে টাকা লোড হওয়ার সাথে সাথে উইথড্র করতে পারবেন। বিকাশে করলেত ৫ মিনিটিই পেয়ে যাবেন।

উপরের সবগুলো স্টেপ সম্পূর্ণ করতে রাজি থাকলেই আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন ২০ ডলার লোড পাবার জন্য।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!